মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

জাতীয় পর্যায়ে জনগণের সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার লক্ষ্যে ১৯৫৮ সালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর হিসাবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে এবং পরবর্তীতে এই স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তর ১৯৮০ সালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে। উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রধান হলেন মহাপরিচালক যিনি সরকারের একজন অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে মোট জনবলের সংখ্যা ১,১৫,৫৩০ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জনগণের স্বাস্থ্য সেবা ব্যতীত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যাবতীয় নূতন নূতন কার্যক্রমের বাস্তবায়ন, অগ্রগতি এবং এ ব্যপারে সকল প্রকার কারিগরি সহযোগিতা প্রদান করে থাকে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সকল কার্যক্রম জাতীয়, বিভাগীয়, জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও মাঠ পর্যায়ে বিস্তৃত। জাতীয় পর্যায়ে জনস্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান, স্নাতকোত্তর চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান এবং বিশেষায়িত স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান ও হাসপাতাল সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। বিভাগীয় পর্যায়ে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল, সংক্রামক হাসপাতাল এবং হেল্‌থ টেকনোলজি প্রতিষ্ঠান সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। জেলা পর্যায়ে সদর হাসপাতাল/ জেনারেল হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সংক্রামক হাসপাতাল, বক্ষব্যাধি ক্লিনিক এবং মেডিকেল ট্রেনিং স্কুল সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও টিবি ক্লিনিকসমূহ সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। ওয়ার্ড/ মাঠ পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিকমূহের মাধ্যমে সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে।

জেলা পর্যায়ে সদর হাসপাতাল/ জেনারেল হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতাল, বক্ষব্যাধি ক্লিনিক এবং মেডিকেল ট্রেনিং স্কুল সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বক্ষব্যাধি ক্লিনিকসমূহ সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করে। ওয়ার্ড/ মাঠপর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিকসমূহের মাধ্যমে সকল চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে।

 

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter